1. alomgirmondol261@gmail.com : দৈনিক আজকের খোলা কাগজ :
শনিবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০২:০৬ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
কুড়িগ্রামে এনজিও নারী কর্মীর মরদেহ উদ্ধার স্বামী লাপাত্তা কেন্দুয়া থানা পুলিশের প্রেস ব্রিফিং নওগাঁর নিয়ামতপুরে আদিবাসী কিশোরীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার নিয়ামতপুরে শান্তিপূর্ণ ভাবে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত কেন্দুয়ার বাউল সাধক জালাল উদ্দীন খাঁকে একুশে পদক সম্মাননা রাজধানীর কামরাঙ্গীরচর এলাকায় অবৈধভাবে চাল মজুদ করে রাখার অপরাধে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালতে ০৩টি প্রতিষ্ঠানকে ০৩ লক্ষ টাকা জরিমানা মাদরাসায়’ছেলের খাবার দিতে গিয়ে প্রাণ গেল বাবার নওগাঁ-২ আসনে জয়ী আওয়ামী লীগের শহীদুজ্জামান সরকার ৪৪ তম আনসার ও ভিডিপি জাতীয় সমাবেশ-২০২৪ উদযাপিত উপজেলা পরিষদ প্রার্থিতার নাটাই এমপিদের হাতে

নওগাঁর নিয়ামতপুরে ইরি-বোরো ধানের বাম্পার ফলন,প্রচুর ব্যস্ততায় কৃষকেরা

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ৪ মে, ২০২৩
  • ২৩৯ বার পড়া হয়েছে

নিয়ামতপুর (নওগাঁ)প্রতিনিধিঃ
নওগাঁ জেলা শস্য ভান্ডার হিসেবে খ্যাত আর জেলার নিয়ামতপুর উপজেলা শস্য ভান্ডারে অন্যতম। এই উপজেলায় চলতি মৌসুমে আগাম ইরি-বোরো ধান কাটার ব্যস্ত সময় পার করছেন কৃষকেরা । একদিকে তাপদাহ অন্যদিকে অতিরিক্ত গরমে কৃষকদের কষ্ট হলেও ধান কেটে মাড়াই কাজ করছেন তারা। পাশাপাশি বসে নেই কৃষাণীরাও। তারাও মনের আনন্দে ধান শুকিয়ে ঘরে তোলার কাজে সহযোগিতা করছেন। আগাম জাতের বোরো ধান কাটা শুরু হলেও উচ্চ ফলনশীল ধান আগামী সপ্তাহে কাটা শুরু হবে বলে জানান কৃষকরা।
চলতি মৌসুমে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহের ফলে কৃষকরা জমিতে সঠিক সময় পর্যাপ্ত পানি পেয়েছে। এছাড়া কৃষি অফিসের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা মাঠপর্যায়ে থেকে কৃষকদের সব রকম পরামর্শ প্রদান, পর্যাপ্ত সার পাওয়ায় এবার কোনো কিছুতেই কৃষকদের বেগ পেতে হয়নি। তাছাড়া এখন পর্যন্ত আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় সর্বত্রই বোরো ধানের ভালো ফলন হওয়ায় কৃষকের মুখে হাসি ফুটে উঠেছে।

উপজেলা কৃষি অফিস জানায়, চলতি বোরো মৌসুমে উপজেলায় ৮ ইউনিয়নে ২০ হাজার ৯ শত ৯৫ হেক্টর জমিতে বোরো ধানের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। আর অবাদ হয়েছে ২২ হাজার ৬ শত ৮৫ হেক্টর। উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ১ লাখ, ৫৬ হাজার, ৫২৬.৫ মেট্রিক টন ধান। উপজেলায় ইস্পাহানী -৮, বেবিলন, হীরা, SL8H, মেটাল সীড হাইব্রিড ৩২০ হেক্টর ।
আর ব্রি ধান ২৮,৬৩, ৭৪, ৮১, ৮৪, ৮৬, ৮৮, ৮৯, ৯০, ৯২, বঙ্গবন্ধু ধান১০০, জিরাশাইল কাটারী উফশী জাতের ২২,৩৬৫ হেক্টর বোরো আবাদ হয়েছে।

উপজেলার ভাবিচা ইউনিয়নের আমইল গ্রামের কৃষক হোসেন আলী বলেন, সার-সেচসহ অন্যান্য সুবিধা পাওয়ায় এ বছর তার জমিতে ফলন ভালো হয়েছে। উচ্চ ফলনশীল ধান আবাদ করায় প্রতি বিঘায় তিনি ২৪-২৮ মণ ধান পেয়েছেন।
বাহাদুর ইউনিয়নের গোকুলপুুর গ্রামের কৃষক আব্দুল আজিজ বলেন, এ মৌসুমে ৫ বিঘা জমিতে বোরো ধান আবাদ করা হয়েছে। সময় মতো পানি, বীজ, সার পাওয়ায় ও আবহাওয়া অনুকূল থাকায় ধানের রোগবালাই কম এতে ধানের ফলন ভালো ফলন হচ্ছে। আমার ২ বিঘা জমির ধান কাটা হয়েছে ফলন প্রতি বিঘায় ২৫ মন হয়েছে। ধান ও বিক্রি করা হচ্ছে ১২০০ থেকে ১২৫০ টাকায় ।এ মৌসুমী ধানের বাজার ভালো পাওয়ায় আমরা খুশি

নিয়ামতপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কামরুল হাসান বলেন, মৌসুমের শুরুতে সরকারিভাবে প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় এ উপজেলায় কৃষককে উফসী ধানের বীজ, ডিএপি সার ও এমওপি সার প্রদান করা হয়েছে। ফলন বৃদ্ধিতে মাঠপর্যায়ে থেকে কৃষকদের বিভিন্ন ধরনের পরামর্শ প্রদান করা হয়। এ মৌসুমে আবহাওয়া অনুকূল থাকায় রোগ বালাই কম হয়েছে। এ পর্যন্ত উপজেলায় ৪০% ধান কর্তন করা হয়েছে। বোরো ধানের গড় ফলন প্রতি হেক্টরে ‌৪.৫ মেট্রিক টন ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

পুরাতন সংবাদ পড়ুন

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট